হাটহাজারীতে কলার পিস ২৫ টাকা

মো: আবু শাহেদ, হাটহাজারী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি; কার প্রিয় নয় পাকা কলা? পাকা কলা যেমন সুস্বাদু তেমন পুষ্টিকর। এতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ক্যালরি। পাকা কলা শরীরে জ্বর দেখা দিলে তার উপশম এবং হঠাৎ ওজন কমে গেলে কিংবা শরীর দুর্বল হলে দেহে শক্তির সঞ্চার করে।

রমজানে রোজাদারদের শরীরে শক্তি সঞ্চারে ইফতার ও সেহরিতে খাবারের তালিকায় মিষ্টি স্বাদের এই ফলটি সবচেয়ে এগিয়ে থাকে। এই সুবাদে এই কলার এত দাম! অবিশ্বাস্য হলেও সত্য যে চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে একটি পাকা কলা বিক্রি হচ্ছে ২৫ টাকায়!

গতকাল চতুর্থ রমজানে হাটহাজারী পৌরসভার বেশ কয়েকটি বাজার ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে। পৌরসভার কাটিরহটে কলা কিনতে এসে একটি পাকা কলার দাম ২৫ টাকা শুনে অবাক স্কুলশিক্ষিকা শারমিন আক্তার।

তিনি বলেন, রমজানে যেসব পণ্যের চাহিদা বেশি থাকে সেসব পণ্যের দাম আগেই বাড়িয়ে দিয়েছে একশ্রেণির অসাধু ব্যবসায়ী। রোজার আগে বাজারে এক ডজন কলার দাম ছিল ৭০ থেকে ১২০ টাকা। অথচ দুই-এক দিনের মধ্যে তা বেড়ে হয়েছে ৩০০ টাকা।

ফলে যে কলাটি ৭-৮ টাকা দরে কিনতাম, তা এখন কিনতে হচ্ছে রীতিমতো ২৫ টাকায়।

কাটিরহাটের কলা বিক্রেতা শাহ আলম বলেন, পাইকারি মজুতদাররা কম দামে আনলেও কৃত্রিম সংকট দেখিয়ে রমজানে আমাদের কাছে বেশি দামে বিক্রি করছে। তাই আমাদের খুচরা বিক্রির ক্ষেত্রে চড়া দামে তা বিক্রি করতে হচ্ছে।

এদিকে, শুক্রবার সকালে উপজেলার কাটিরহাটে চড়া দামে কলা বিক্রি করায় এক বিক্রেতাকে দুই হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মোহাম্মাদ রুহুল আমীন।

তিনি বলেন, দ্রব্যমূল্যে অসঙ্গতি কোনোভাবে মেনে নেয়া হবে না। চড়ামূল্যে পণ্য বিক্রি করলে তার খেসারত দিতেই হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *